বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭ || সময়- ১০:২৮ am
ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ, তবুও বাজারে আগুন
বৃহস্পতিবার ৬ এপ্রিল ২০১৭ , ১১:৩৫ am
ভোলার মেঘনায় ধরা পড়ছে ঝাঁকে ঝাঁকে.jpeg

নিউজ ডেস্ক
ঢাকা : 
জোগান বাড়লে দাম কমে, জোগান কমলে দাম বাড়ে অর্থনীতির এ সূত্রকে মিথ্যা প্রমাণ করেছে ইলিশের বাজার। ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ, তারপরও বাজারে আগুন। সরকারের নানা উদ্যোগে জাতীয় মাছের উৎপাদন প্রায় দ্বিগুণ বাড়লেও দাম না কমে উল্টো হয়েছে আকাশচুম্বী। সাধারণ মানুষের কাছে ইলিশ খাওয়া যেন স্বপ্নবিলাস।

আর মাত্র ৯দিন পরই বাঙালির প্রাণের উৎসব পহেলা বৈশাখ। এ উৎসবের অবিচ্ছেদ্য অংশ পান্তা-ইলিশ। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়েই বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ইলিশের দাম। বর্তমানে এক কেজি ওজনের একটি মাছ খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে দেড় থেকে দুই হাজার টাকায়। অথচ মাসখানেক আগেও ছিল ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা।

মৎস্য অধিদপ্তর জানায়, ২০০০-০১ অর্থবছরে দেশে ইলিশের উৎপাদন ছিল দুই লাখ ২৯ হাজার ৭১৪ টন। আর গত অর্থবছরে (২০১৫-১৬) চার লাখ টনের বেশি ইলিশ উৎপাদন হয়েছে। যদিও ২০০২-০৩ অর্থবছরে দেশে ইলিশ উৎপাদন হয়েছিল দুই লাখ টনের কম। ২০০৩-০৪ অর্থবছরে উৎপাদন আরও কমে এক লাখ ৩৩ হাজার ৩২ টনে নেমে আসে। এরপর থেকেই জাটকা রক্ষা কর্মসূচিতে জোর দেয় সরকার। এতে উৎপাদন কিছুটা বাড়তে থাকে। ২০০৮-০৯ অর্থবছরে দুই লাখ ৯৮ হাজার ৯২১ টন ইলিশ উৎপাদিত হয়। এরপর শুরু হয় মা মাছ রক্ষার কর্মসূচি। এতে ইলিশের উৎপাদন তিন লাখ টন ছাড়িয়ে যায়। মৎস্য অধিদপ্তরের হিসাবে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে দেশে তিন লাখ ৮৫ হাজার টন ইলিশ উৎপাদিত হয়েছিল।

চলতি অর্থবছরে তা সাড়ে চার লাখ টন ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে করছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা। তবে উৎপাদন যাই হোক, দাম কমছে না প্রিয় ইলিশের। গেল বছরের সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর পর্যন্তও এ মাছের দাম ছিল মধ্যবিত্তের নাগালে। তখন ৫০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের কেজিপ্রতি দাম ছিল ৭০০ টাকা আর এক কেজি ওজনের একটির দাম ছিল ৯০০ থেকে হাজার টাকা। এ ছাড়া ৩০০ গ্রাম ওজনের ইলিশের কেজি ৪০০ থেকে ৫০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। বর্তমানে ৫০০ গ্রাম ইলিশের কেজি এক হাজার টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আর এক কেজি ওজনের মূল্য রাখা হচ্ছে দেড় থেকে দুই হাজার টাকা পর্যন্ত। এ ছাড়া ৩০০ গ্রাম ইলিশের মূল্য কেজিপ্রতি বিক্রি হচ্ছে ৭০০ টাকায়।

এ প্রসঙ্গে রাজধানীর সোয়ারীঘাটের আড়তদার গণি মিয়া জানান, পহেলা বৈশাখের সময়ে ইলিশের চাহিদা বাড়ে। আবার এ সময়ই জাটকা রক্ষার কর্মসূচি চলে বিধায় ইলিশ কম ধরা পড়ে। যার ফলে এমনিতেই দাম বৃদ্ধি পায়।

এদিকে ওয়ার্ল্ড ফিশের পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী, ইলিশ পাওয়া যায় বিশ্বের এমন ১১টি দেশের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশেই উৎপাদন ক্রমাগত বাড়ছে। বর্তমানে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, চীন, শ্রীলংকা, বাহরাইন, কুয়েত এসব অঞ্চলে সীমিত আকারে ইলিশ পাওয়া যায়। তবে বিশ্বে মোট ইলিশের ৬৫ শতাংশই উৎপাদন হয় বাংলাদেশে। আর ভারতে হয় ১০ থেকে ১৫, মিয়ানমারে আট থেকে ১০ শতাংশ।


প্রহরনিউজ/প্রাণি/আসমা