মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭ || সময়- ৬:৪৫ pm
ভেঙে ফেলা হবে তাজমহল!
শুক্রবার ২০ অক্টোবর ২০১৭ , ২:৪৩ pm
Taj-Mahal_288x222.png

প্রহরনিউজ, সংস্কৃতি: ক্ষমতাসীন দল বিজেপি পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্যের একটি আগ্রার তাজমহল ভেঙে ফেলার দাবি করেছেন ভারতের সমাজবাদী পার্টির নেতা আজম খান।

সম্প্রতি তাজমহলকে ‘ভারতের সংস্কৃতির কলঙ্ক’ হিসেবে অভিহিত করে সমালোচিত হয়েছিলেন বিজেপি বিধায়ক সঙ্গীত সোম। তাজমহলের নাম বদলে ‘তেজো মহল’ করারও দাবি তোলে আরেক বিজেপি নেতা বিনয় কাটিয়ার। তিনি দাবি করেছেন, মন্দির ভেঙেই নির্মিত হয়েছে শাহজাহানের এই প্রেমের সমাধি।

এদিকে বুধবার আর এক বিজেপি নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী দাবি করেছেন,যে জমিতে তাজমহল দাঁড়িয়ে আছে সেই জমিটি জয়পুরের রাজাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নিয়েছিলেন মুঘল সম্রাট শাহজাহান।

তার কথায়, ‘আমার হাতে এমন নথি এসেছে, যা থেকে স্পষ্ট যে জয়পুরের রাজা–মহারাজাদের তাজমহলের জমিটি বেচতে বাধ্য করেছিলেন শাহজাহান। ক্ষতিপূরণ বাবদ সেই রাজাদের ৪০টি গ্রাম দেওয়া হয়েছিল। যাকে কোনও ভাবেই ওই জমির দামের সঙ্গে তুলনা করা যায় না।’

তিনি আরও বলেন, ‘নথিতে আরও দেখা যাচ্ছে, ওই জমিতে একটি মন্দির ছিল। কিন্তু মন্দির ভেঙেই তাজমহল বানানো হয়েছিল, তা অবশ্য স্পষ্ট নয়।’

 শীঘ্রই ওই নথি তিনি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করবেন বলেও জানিয়েছেন স্বামী।

বিজেপি নেতাদের এমনসব বক্তব্য তাজমহলের ভবিষ্যৎ নিয়ে শঙ্কিত করে তুলেছে আজম খানকে।

তিনি বলেন, ‘যদি বাবরি মসজিদ গুঁড়িয়ে দেওয়া যায়, তা হলে দেশে কোনও সৌধই ভেঙে ফেলা হতে পারে। এই পরিস্থিতিতে যে কোনও দিন তাজমহল ধ্বংস হয়ে যেতে পারে। এতে আশ্চর্য হওয়ার কিছু নেই। দেশের কোনও সৌধই এখন নিরাপদ নয়।’

তার কথায়, ‘রাম মন্দিরের নামে যারা বাবরি ভাঙতে পারে, তারা সবই করতে পারে। তাজের আন্তর্জাতিক খ্যাতি রয়েছে বলেই ওই সৌধ এখনও দাঁড়িয়ে রয়েছে।’

তবে বিশ্বজুড়ে পর্যটকদের কাছে জনপ্রিয় ও ঐতিহাসিক স্থাপত্য তাজমহল নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করা থেকে নিজ দলের সদস্যদের সতর্ক করেছেন বিজেপির উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেছেন, তাজমহল কার সময়ে তৈরি হয়েছে, সেটা বড় কথা নয়। কারণ এটি তৈরি হয়েছে ভারতীয় শ্রমিকদের ঘাম এবং রক্তে।

সূত্র : আনন্দবাজার