মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭ || সময়- ২:১৯ am
ধান চাষে গুটি ইউরিয়া ব্যবহার
বুধবার ১ নভেম্বর ২০১৭ , ৮:৫৩ pm
গুটি ইউরিয়া.JPG

গুটি ইউরিয়া কি?
গুটি ইউরিয়া নাইট্রোজেন সংবলিত একটি রাসায়নিক সার। দেখতে ন্যাপথলিনের মতো, গুড়া বা দানাদার ইউরিয়া থেকে ব্রিকোয়েট মেশিনের সাহায্যে গুটি ইউরিয়া তৈরি করা হয়।
গুটি ইউরিয়া ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা
* গুড়া বা দানাদার ইউরিয়া ব্যবহারে নাইট্রোজেন দ্রুত গ্যাস আকারে বাতাসে উড়ে যায়।
* গুঁড়া ইউরিয়া পানিতে দ্রুত দ্রবীভূত হয় এবং চুইয়ে মাটির নিচে গভীরে চলে যায়।
* বৃষ্টি বা সেচের পানির সাথে ইউরিয়া ধুয়ে সহজেই ক্ষেত থেকে বের হয়ে যায়।
* গুঁড়া বা দানাদার ইউরিয়া অনেক ক্ষেত্রেই ফসলের কাজে না লেগে আগাছার বিস্তারে সহায়ক হয়।
* গুড়া ইউরিয়া ব্যবহারে নাইট্রোজেন বাতাসে মিশে পরিবেশ দূষণ ঘটায়।
* গুড়া বা দানাদার ইউরিয়া বারবার ব্যবহার করতে হয় বলে খরচ বেশি পড়ে পাশাপাশি  অপচয়ও বেশি হয়।
গুটি ইউরিয়া ব্যবহারের সুবিধা
* এক মৌসুমে মাত্র একবার প্রয়োগ করতে হয়।
* গুটি ইউরিয়া ব্যবহারে মাটিতে ইউরিয়া সারের ব্যবহার ২৫-৩০ ভাগ কম হয়।
* গুটি ইউরিয়া সব সময় গাছের প্রয়োজন অনুযায়ী ইউরিয়া সরবরাহে সক্ষম বিধায় গাছের গুপ্ত ক্ষুধা থাকে না।
* গুটি ইউরিয়া প্রয়োগে গাছের বৃদ্ধি ভালো হয় বলে অপেক্ষাকৃত লম্বা শিকড় মাটির গভীর থেকে রস আহরণে সক্ষম হয় ফলে খরা সহ্য করতে পারে।
* গুটি ইউরিয়া প্রয়োগকৃত জমিতে ১৫-২০ ভাগ ফলন বেশি হয়।
গুটি ইউরিয়ার প্রকারভেদ
গুটি ইউরিয়া আকার তথা ওজনের জন্য ভিন্ন রকমের হয়ে থাকে। ০.৯ গ্রাম সাইজের গুটিকে সাধারণ গুটি (টঝএ) বলে। এ গুটি বোরো ধানে ৩টি করে, আউশ ও আমন ধানে ২টি করে প্রয়োগ করতে হয়। ১.৮ গ্রাম ও ২.৭ গ্রাম ওজনের আরো দুই ধরনের গুটি ইউরিয়া  রয়েছে। এ ধরনের গুটিকে মেগা গুটি ইউরিয়া  বলে। ১.৮ গ্রাম ওজনের গুটি আউশ ও আমন ধানে ১টি করে এবং  ২.৭ গ্রাম ওজনের গুটি  বোরো ধানে ১টি করে প্রয়োগ করতে হয়।
গুটি ইউরিয়া প্রয়োগ পদ্ধতি
প্রথম সারিতে প্রথম চার গোছার মাঝখানে ৭-১০ সেমি. বা ৩-৪ ইঞ্চি মাটির গভীরে গুটি পুঁততে হয়। একই সারিতে পরবর্তী চার গোছার মাঝখান বাদ দিয়ে তারপরের চার গোছার মাঝখানে গুটি পুঁততে হবে। এভাবে প্রথম সারিতে গুটি পুঁতা শেষ করতে হবে। দ্বিতীয় সারিতে গুটি পুঁততে হয় না। আবার তৃতীয় সারিতে প্রথম সারির মতো করে গুটি পুঁততে হবে। এভাবে এক সারি পর পর গুটি পুঁতে সম্পূর্ণ জমিতে ইউরিয়া প্রয়োগ শেষ করতে হবে।
গুটি ইউরিয়া ব্যবহারে সতর্কতাগুলো
* সারিতে চারা রোপণ করতে হবে।
* চারা রোপণের ৫-৭ দিনের মধ্যে জমিতে গুটি পুঁততে হবে।
* গুটি প্রয়োগের সময় জমিতে ২-৩ সেমি. পানি রাখা বাঞ্ছনীয়।
* কোন কারণে অপেক্ষাকৃত শক্ত মাটিতে গুটি প্রয়োগ করতে হলে তা অবশ্যই কাদা দিয়ে ঢেকে দিতে হবে।
* গুটি প্রয়োগের সময় এমন পরিমাণ গুটি সঙ্গে নিতে হবে যাতে সারির মাঝামাঝি থেকে গুটি নেয়ার জন্য ফিরে আসতে না হয়।
* গুটি প্রয়োগকৃত স্থানে কোনমতেই পা দেয়া যাবে না।
* গুটি প্রয়োগের ৩০ দিন পর্যন্ত জমিতে নামা যাবে না। যদি কোন কারণে নামতেই হয় তবে খেয়াল রাখতে হবে যেন গুটি প্রয়োগকৃত স্থানে পা না পড়ে।
* গুটি প্রয়োগের পর জমিতে এমনভাবে পানি ব্যবস্থাপনা করতে হবে যেন কখনোই মাটি ফেটে না যায়।
* বেলে মাটিতে গুটি ইউরিয়া প্রয়োগ করা যাবে না।