মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭ || সময়- ৬:৩৩ pm
উচ্চশিক্ষা নিতে জাপান গেলো ৫৫ শিক্ষার্থী
রবিবার ৫ নভেম্বর ২০১৭ , ৮:৪১ pm
Visa Success Students.jpg

ঢাকা: ঢাকার শ্যামলীতে অবস্থিত জাপানিজ ল্যাংগুয়েজ ইন্সটিটিউট ইচিবান স্টাডি লিঙ্ক থেকে ৫৫ শিক্ষার্থী জাপান গিয়েছে উচ্চশিক্ষা নিতে। তারা হলেন – এস এম এমদাদুল হক দিপু, রাকিবুল হাসান মজুমদার, ফখরুল ইসলাম দিদার, ফজলে বারী, জেরিন শুভা আঙ্কিতা, সোহেল সরকার, আবু তালহা শাকিল, আবুল কালাম আজাদ, আকাশ-উল-ইসলাম কাউসার, ফয়সাল আহমেদ, রহমত উল্লাহ, মোঃ কামরুজ্জামান, আল মাসুদ, রাজিব হুসাইন, বিল্লাল হুসাইন, নাজমুস সাকিব, হুমায়ূন কবির, হারুনর রশিদ, সাইদুর রহমান, জাহিদ হাসান, মোঃ নয়ন, শিরিন সুলতানা, মাহমুদুর রহমান ফাহিম, নাজমুল হাসান তানভীর, রাইসুল ইসলাম, তানভীর হাসানসহ আরো অনেক শিক্ষার্থী। তারা জাপানের টোকিও, ওসাকা, কোবে, নাগয়া, গুন্মা, সাইতামা, চিবা, নিগাতা, ফুকুকা, ইয়োকোহামা, সেন্দাই, ফুকুশিমাসহ বিভিন্ন শহরে পড়াশুনা করতে গিয়েছে।

জাপানের শিক্ষার মান আন্তর্জাতিক মানের। প্রায় সাড়ে সাতশো বিশ্ববিদ্যালয়ে তুলনামুলকভাবে অনেক কম খরচে পড়াশোনা করার সুযোগ রয়েছে ছাত্রছাত্রীদের। পড়াশোনার পাশাপাশি সাপ্তাহিক ২৮ ঘন্টা খন্ডকালীন চাকুরির সুযোগ দিচ্ছে জাপান সরকার যা ইউরোপ বা আমেরিকার কোন উন্নত দেশেই নেই। তাছাড়া বাৎসরিক অবকাশকালীন সময়ে খন্ডকালীন চাকুরির সময় নিয়ে কোন বাধ্যবাধকতা নেই। জাপানে প্রতি ঘন্টায় খন্ডকালীন চাকুরির বেতন সর্বনিন্ম ৮০০ জাপানিজ ইয়েন। কাজ ও ভাষার দক্ষতা বাড়ার সাথে সাথে এই বেতনও বাড়ে। এভাবে পড়াশোনার পাশাপাশি কাজ করে নিজের পড়াশোনার খরচ মিটিয়ে দেশে টাকা পাঠাচ্ছেন অনেকে। অন্যদিকে পড়াশোনা শেষেই ফুলটাইম চাকুরির সুযোগ মিলছে জাপানে এবং ওয়ার্ক ভিসা থেকে আবেদন করা যায় গ্রিন কার্ডের জন্য। তাছাড়া জাপান এমব্যাসি এখন ভিসা প্রদানের ক্ষেত্রে অনেক নমনীয়।