বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ || সময়- ১:৩৮ am
ভারতের রাজস্থানে বিয়ে করার অপরাধে জ্যান্ত পোড়ানো হল যুবককে! এগিয়ে এলো না কেউ-
বৃহস্পতিবার ৭ ডিসেম্বর ২০১৭ , ২:২৬ pm
জ্যান্ত পোড়ানো

প্রহরনিউজ, প্রবাস:ভিন্ন ধর্মের মেয়েকে বিয়ে করার ‘অপরাধে’ প্রথমে লাঠি দিয়ে মার। পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপ। বেধড়ক মার খেয়ে তখন বাঁচার আর্তি জানানোর ক্ষমতাটুকুও ছিল না বছর চব্বিশের যুবকের। ধুঁকছিলেন বটে, কিন্তু তখনও প্রাণ ছিল দেহে। সেটুকুও কেড়ে নিতে কেরোসিন ঢেলে দেশলাই জ্বালিয়ে জ্যান্ত পুড়িয়ে দেওয়া হল তাকে। তবু মৃতপ্রায় যুবককে বাঁচাতে এলেন না কেউ, বরং লেন্সবন্দি করা হল গোটা ঘটনার ভিডিও।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, পরনে লাল শার্ট, সাদা প্যান্ট, পায়ে সাদা স্নিকার- কার্যত কেতাদুরস্ত এক ব্যক্তির চরম হিংসার শিকার হয়েছেন আফরাজুল। প্রথমে তাকে কোপানো হয়। পরে মাটিতে ফেলে তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়।

এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, কাজের সূত্রে ভারতের রাজস্থানে গিয়েছিলেন মালদার যুবক মহম্মদ আফরাজুল। সেখানেই কাজ জুটিয়ে চলছিল দিন গুজরান। কিন্তু রাজস্থানের মেয়ে রুমার প্রেমে পড়ে যান তিনি। সমাজ, পরিবার, ধর্মকে ফুৎকারে উড়িয়ে তাদের ভালবাসা পরিণতি পায়। বিয়ে করেন দুজনে।

কিন্তু শেষমেশ ভালবাসার ‘অপরাধে’ নিজের প্রাণটাই দিতে হল আফরাজুলকে।