রবিবার ২১ জানুয়ারী ২০১৮ || সময়- ১:৪৩ am
অস্ট্রেলিয়ার হেড কোচ রিকি পন্টিং!
সোমবার ১ জানুয়ারী ২০১৮ , ৪:০০ pm
রিকি পন্টিং

প্রহরনিউজ, খেলা: ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম মহা তারকা অস্ট্রেলিয়ার রিকি পন্টিং। টেস্ট ও ওয়ানডে তার ব্যক্তিগত সাফল্যের পাশাপাশি নিজের দলকে নিয়ে গেছেন সাফল্যর অনেক উচুতে। তার অধিনায়কত্বে অস্ট্রেলিয়া দল দুইবার শিরোপা জিতে। ২০০৩ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে ২০০৭ সালে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপের শিরোপা।

এছাড়া ১৯৯৯ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপে শিরোপা জয়ে তার ভুমিকা ছিল অসাধারণ। যেটি ছিল অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় বিশ্বকাপ জয়।

আর এমনি এক মহা তারকাকে এবার নিজের কোচ হিসেবে বেছে নিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। পন্টিংকে নিজেদের টি-টোয়েন্টি দলের কোচ বানাতে পরিকল্পনা করছে অস্ট্রেলিয়া।

পন্টিং তার মেধা ও দক্ষতা এরই মধ্যে প্রমাণও করেছেন। ২০১৭ সালের শুরুতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজে পন্টিং সহকারী কোচ হিসেবে কাজ করেছিলেন। তাছাড়া আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের কোচ হিসেবে পন্টিং বেশ কয়েক মৌসুম ধরেই কাজ করছেন। ২০১৫ সালে তাঁর অধীনেই আইপিএলের শিরোপা জেতে মুম্বাইয়ের ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

ফলে ক্রিকেটের অন্যতম সেরা তারকা ও ক্রিকেট মস্তিষ্ক হিসেবে মনে করা পন্টিংকে অস্ট্রেলীয়া নিজেদের কোচ করাটায় উপযুক্ত মনে করছে। তবে বিষয়টি এখনো প্রাথমিক পর্যায় রয়েছে। তবে ২০২০ সালে নিজ দেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে রিকি পন্টিংয়ের হাতে অস্ট্রেলীয় টি-টোয়েন্টি দলের দায়িত্ব তুলে দিতে যাচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া বিষয়টি বেশ প্রচার প্রচারনা হয়ে গেছে।

ক্রিকেটের মহা শক্তিধর অস্ট্রেলিয়া এখন পর্যন্ত পাঁচবার ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিতলেও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখনো কোন সাফল্য পায়নি। তাই এ সাফল্য পেতে পন্টিং অস্ট্রেলিয়ার কোচ উপযুক্ত মনে করছে।

বর্তমান কোচ ড্যারেন লেম্যান ২০১৯ বিশ্বকাপের পর দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর পরবর্তী কোচ হিসেবে একজনের হাতে পুরো দলের দায়িত্ব না দেওয়া পরিকল্পনায়া আছে অস্ট্রেলিয়া। তাই পন্টিংকে শুধু টি-টোয়েন্টির কোচ বানানোর পরিকল্পনা ইঙ্গিতই দিচ্ছে তারা।

এ বিষয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ড এ ব্যাপারে পন্টিংয়ের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত যে দ্রুতই হচ্ছে, এ রকম কোনো আভাস প্রতিবেদনটিতে দেওয়া হয়নি প্রকাশিত প্রতিবেদনে।