সোমবার ২২ জানুয়ারী ২০১৮ || সময়- ১:১১ pm
মাহাবুবুর রহমানকে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে অভিনন্দন
শুক্রবার ১২ জানুয়ারী ২০১৮ , ৫:২০ pm
Screenshot_20180112-160651

ঢাকা: বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি ও শিক্ষক কর্মচারী সংগ্রামী ঐক্যজোটের প্রধান সমন্বয়কারী জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম রনির নেতৃত্বে বেসরকারী শিক্ষা জাতীয়করণ লিঁয়াজো ফোরামের আহ্বায়ক আঃ খালেক সহ ১০ সদস্যের এক প্রতিনিধি দল গত ১১ জানুয়ারি রোজ বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের নবাগত মহাপরিচালক অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমানকে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও বেসরকারী শিক্ষা জাতীয় করণ লিঁয়াজো ফোরামের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম রনি এমপিও ভূক্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে অবিলম্বে জাতীয়করণ করার বিষয়ে মহাপরিচালককে যৌক্তিকতাসহ বুঝিয়ে বলেন। এ বিষয়ে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার শিক্ষক জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গত ৩ দিন যাবত অবস্থান ধর্মঘট করছেন বিষয়টি ডিজি মহোদয়কে অবহিত করেন। বর্তমানে শিক্ষকদের মধ্যে বেতন বৈষম্য রয়েছে। আর এই বেতন বৈষম্য শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়নে প্রধান বাঁধা। শিক্ষা জাতীয়করণ হলে দেশের সাধারণ মানুষের সন্তান স্বল্প বেতনে শিক্ষার সমসুযোগ নিতে পারবে এবং তাদের সন্তান উচ্চ শিক্ষার সুযোগ গ্রহণ করতে পারবে। শিক্ষা জাতীয়করণ হলে শিক্ষক, দেশের সাধারণ জনগণ এমনকি সরকারও এর সুবিধা পাবে। বর্তমানে এমপিও ভূক্ত শিক্ষক/কর্মচারীগণ সরকারের নিকট থেকে প্রায় ৯০০ কোটি টাকা অনুদান পান। এমপিও ভূক্ত প্রতিষ্ঠানের আয় ফেরত নিয়ে শিক্ষা জাতীয় করণের পদক্ষেপ নিলে সরকারের আর্থিক তেমন ক্ষতি হবে না। হাজার হাজার এমপিও ভূক্ত শিক্ষক/কর্মচারীগণ প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষা জাতীয় করণের অবস্থান ধর্মঘটের কথা প্রথম শুনে বর্তমান ডিজি অবাক হন এবং শিক্ষকদের এই দুরাবস্থার কথা শুনে তিনি ব্যাথিত হন। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়াসহ শিক্ষকদের অবস্থান ধর্মঘটে আসবেন বলে জানান। শিক্ষক প্রতিনিধি দলে আরো উপস্থিত ছিলেন- মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয় লিঁয়াজো কমিটির আহ্বায়ক ড. ইদ্রিস আলী, মোঃ জসিম উদ্দিন, মোঃ নূরুল ইসলাম, কাজী নূরুল হাউল, এনামুল ইসলাম মাসুদ, মোঃ রবিউল আলম প্রমুখ।